আবার ব্যর্থ তামিম – হতাশার শেষ কোথায়?

Posted in: Bangladesh Cricket, Sports Nov, 06 2014 | Comments

জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে শতক করার পর, দ্বিতীয় ইনিংসে আবার “স্বভাবসুলভ” আউট হয়েছে তামিম। মনে আছে, তামিম যখন প্রথম বাংলাদেশ দলে এল, ভারতকে হারাল, কি অসাধারণ সাফল্য আর সম্ভাবনা নিয়ে ও এসেছিল দলে। কিন্তু তা বহু বছর আগের কথা… মাঝে মাঝে ও গর্জে ওঠে থিকই, কিন্তু ধারাবাহিকতার অভাব অত্যন্ত প্রকট হয়ে চোখে ধরা দেয়।

Tamim-Iqbal
গত ৩০ টি টেস্ট ইনিংসে তামিমের রান যথাক্রমেঃ

২০ (৩ নভেম্বার ২০১৪), ১০৯, ০, ৫, ৬৪, ৪৮, ৫৩, ১, ৩১, ০, ১১, ৬, ৭০, ৯৫, ৪৬, ০, ৭, ৪৯, ৫৯, ১০, ২৮, ৩২, ৫, ৭২, ২১, ১৪, ১৫, ৯, ৮৩, ১৪ (২৯ অক্টবার ২০১১)

শুন্যতে আউট ৩ বার। এক থেকে দশের মধ্যে আউট ৭ বার। এগার থেকে ত্রিশের মধ্যে আউট ৭ বার। ৫০ এর উপরে স্কোর করেছেন ৬ বার ও সেঞ্চুরি ১ বার। অতএব ত্রিশ ইনিংসের মধ্যে আমাদের ওপেনার মোটামোটি মানের কোন অবদান না রেখেই (একজন ওপেনারের কাছে চাহিদা অনেক) আউট হয়েছেন ১৭ বার।

গত ৩০ টি এক দিনের ম্যাচে তামিমের রান যথাক্রমেঃ

৫৫ (২৫ অগাস্ট ২০১৪), ৩৭, ২৬, ৪, ০, ৫৮, ৫, ৩২, ৬, ২৭, ১১২, ৮, ১, ২২, ৫, ৫৮, ৬০, ৫৯, ৭০, ৬৪, ০, ৪, ০, ৩৬*, ১, ২১, ৪৫, ৬১, ৪৪, ৩ (১২ অগাস্ট ২০১১)

ত্রিশের নিচে রান করে আউট হয়েছেন ১৬ বার। এই ত্রিশ ম্যাচের গড় ৩৫.৪৮। টি টোয়েন্টিতেও শেষ ১৫ ম্যাচের মধ্যে ১০ এর নিচে আউট হয়েছেন ৭ বার।
এটা আমরা সবাই মানি যে তামিম একজন ভাল খেলোয়াড়। কিন্তু তার ধারাবাহিকতার এই অভাব বাংলাদেশকে অনেক ভোগায়। যেদিন তামিম ২০ বা ৩০ এর উপর করতে পারে, মানে প্রাথমিক ধাক্কা শামাল দিতে পারে সেদিন ও একটা বড় স্কোর করে। কিন্তু শুরুতেই আউট হয়ে যাওয়ার সমস্যাটা ওর পেছনে ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই যেন লেগে আছে।

এখন সময় এসেছে, নিজের ভুল ত্রুটিতে আর সমালোচককে এড়িয়ে না গিয়ে, “প্রত্যাশার চাপকে” দোষ না দিয়ে, নিজের পারফরম্যেন্সের উপর অনেক বেশি নজর দেয়া। তামিমকে আমরা সবাই খুব ভালবাসি, তাই ও খারাপ খেললে কষ্টটাও বেশি পাই।

আর্টিকেলটি ভাল লাগলে লাইক করুন, শেয়ার করুন। কমেন্ট করে আপনার মতামত জানান।