নিজেই তৈরি করুন কাগজের স্নো-ফ্লেক (Step by Step Photo Instructions)

Posted in: Crafts & DIY Oct, 30 2014 | Comments

কাগজ শিল্পের একটি অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম হল কিরিগ্যামি। এটি জাপানি কাগজশিল্পের একটি ধারা এবং জাপানি শব্দ Kirukami থেকেই কিরিগ্যামির আগমন। “kiru’ অর্থ কাটা আর ‘Kami’ অর্থ কাগজ। অর্থাৎ কাগজ কাটার যে শিল্প, সেটিই হল কিরিগ্যামি। কিরিগ্যামি অরিগ্যামির মতই, তবে অরিগ্যামিতে কোন কাট-পেস্টের ব্যাপার থাকে না, শুধুই ভাঁজ করতে হয় । আর কিরিগ্যামিতে কাগজ কেটে সেটিকে অন্য কোন ব্যাকগ্রাউন্ডে পেস্ট করার একটি বিষয় আছে। কিরিগ্যামিরও বেশ কিছু ধারা আছে। যেমন পপ-আপ বা অরিগ্যামিক আর্কিটেকচার, স্নো-ফ্লেক্স ইত্যাদি। এর মধ্যে স্নোফ্লেক্স খুবই জনপ্রিয়, আজ আমরা তা-ই শিখবো। কাগজকে ভাঁজ করে ইচ্ছেমত কেটে-কুটে ভাঁজ খুলে দিলেই অদ্ভুত সুন্দর সব প্যাটার্ন তৈরি হয়ে যায়! সেগুলোকে কার্ড বানানোর সময় স্ট্যাম্পিঙের কাজে, ঘর সজ্জায়, গিফট প্যাকেজ অথবা যেকোন কাগজের সাজ-সজ্জার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।

চলুন দেখে নেয়া যাক কী করে খুব সহজেই কিরিগ্যামি দিয়ে স্নো-ফ্লেক বানাতে হয়।

যা যা প্রয়োজনঃ

1

০১। স্কয়ার সাইজের এক টুকরো কাগজ (আমি এ-ফোর সাইজ কাগজকে স্কয়ার করে নিয়েছি)। সাধারণত এ-ফোর সাইজের রঙ্গিন কাগজই আমি ব্যবহার করি।
০২। একটি সাইনপেন (কাগজে দাগ কাটলে যেন দেখা না যায়, তাই কাগজের রঙেই সাইন পেন ব্যবহার করেছি) এবং
০৩। একটি কাঁচি।

যেভাবে বানাতে হবেঃ

১। প্রথমেই ছবির মত করে কাগজটিকে আড়াআড়িভাবে ভাঁজ করে নিতে হবে।
2

২। এবারে ত্রিভুজাকৃতির কাগজটিকে আবার আড়াআড়িভাবে ভাঁজ করতে হবে।
3

 

৩। এভাবে পরপর ৪ বার কাগজটিকে ভাঁজ করার পর দেখতে এমন হবে। চতুর্থবার ভাঁজ করার সময় কাগজটিকে মাঝখান (ক্রস চিহ্নযুক্ত অঞ্চল) থেকে ভাঁজ না করে ছবির মত উপর দিক (টিক চিহ্নযুক্ত অঞ্চল) থেকে ভাঁজ করতে হবে)। এতে ভাঁজ করা কাগজটির নিচে একটি বাড়তি অংশ বের হবে।
4

 

৪। এবারে নিচের বাড়তি অংশটিকে সমান করে কেটে দিতে হবে। ঠিক ছবির মত করে।
5

 

৫। এবারে সাইন পেন দিয়ে নিজের ইচ্ছেমত একটি প্যাটার্ন এঁকে নিতে হবে ভাঁজ করা কাগজটির ওপর।
6

 

৬। এবার প্যাটার্ন অনুযায়ী কাগজটিকে কেটে নিতে হবে। কাটার পর যা দেখতে ছবিতে দেখানো কাগজটির মত হবে।
7

 

৭। এবারে আসল মজা। এক এক করে কাগজের ভাঁজগুলো সব খুলে ফেলতে হবে।
8

 

৮। একটু চিন্তা করে পাঁচ নাম্বার ধাপের প্যাটার্ন বদলে নিয়ে আপনি আপনার ইউনিক স্নোফ্লেক তৈরি করে নিতে পারবেন…
9

তৈরি হয়ে গেল আমাদের পেপার স্নো-ফ্লেক! এবারে এটিকে বই, নোট বই বা স্ক্র্যাপবুকের মলাট, দেয়াল, উপহার সামগ্রীর মোড়কসজ্জা কিংবা কার্ডের গায়ে স্ট্যাম্পিঙের কাজে ব্যবহার করা যাবে। হ্যাপি ক্র্যাফটিং!

আর্টিকেলটি ভাল লাগলে লাইক করুন, শেয়ার করুন। কমেন্ট করে আপনার মতামত জানান।